Monday, November 19, 2018

পুরাতন কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যার কারণ, লক্ষণ এবং এর থেকে মুক্তির উপায়

কোষ্ঠ অর্থ হচ্ছে মলাশয় আর কোষ্ঠকাঠিন্য অর্থ হচ্ছে মলাশয়ের মল ঠিকমতো পরিষ্কার না হওয়া বা মলে কাঠিন্যহেতু মলত্যাগে কষ্টবোধ হওয়া। যথেষ্ট পরিমাণ আঁশজাতীয় বা সেলুলোজ জাতীয় খাবার খাওয়ার পরও যদি সপ্তাহে তিন বারের কম স্বাভাবিক ও স্বতঃস্ফূর্ত মলত্যাগ হয়, তবে তাকে কোষ্ঠকাঠিন্য বলে।
কোষ্ঠকাঠিন্য হলে ভালোভাবে জীবনযাপন করাটাও কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। শৌচাগারে লম্বা সময় কাটিয়েও অনেক ক্ষেত্রে মল পরিষ্কার হয় না। অনেকে তো কোষ্ঠকাঠিন্যের ভয়ে নানা ধরনের খাবার খাওয়াও ছেড়ে দেন। হয় তো আপনিও এই সমস্যায় ভুগছেন।

কোষ্ঠকাঠিন্যের কারণ

  • বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই এর কারণ অজানা
  • সুষম খাবার, আঁশজাতীয় খাবার কম খাওয়া
  • পানি কম পান করা
  • শর্করা বা আমিষ যুক্ত খাবার অতিরিক্ত পরিমাণে খাওয়া
  • ফাস্টফুড, মশলাযুক্ত খাবার বেশি খাওয়া
  • সময়মত খাবার না খাওয়া
  • কায়িক পরিশ্রম কম করা
  • দুশ্চিন্তা করা
  • বিভিন্ন রোগ, যেমনঃ ডায়াবেটিস, মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ বা টিউমার, থাইরয়েডের সমস্যা, অন্ত্রনালীতে ক্যান্সার, কাঁপুনিজনিত রোগ, স্নায়ু রজ্জুতে আঘাত, দীর্ঘমেয়াদি কিডনি রোগ ইত্যাদি হওয়া
  • দীর্ঘদিন বিছানায় শুয়ে থাকা
  • বিভিন্ন ধরনের ওষুধ, যেমনঃ ডায়রিয়া বন্ধের ওষুধ, পেট ব্যথার ওষুধ, উচ্চ রক্তচাপের ওষুধ, পেপ্টিক আলসার এর ওষুধ, খিঁচুনির ওষুধ, আয়রন, ক্যালসিয়াম ও অ্যালুমিনিয়াম সমৃদ্ধ ওষুধ সেবন করা
পুরাতন কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যার কারণ, লক্ষণ এবং এর থেকে মুক্তির উপায়

কোষ্ঠকাঠিন্যের লক্ষণ/উপসর্গ কি কি?

  • স্বাভাবিক এর চেয়ে কম সংখ্যকবার মলত্যাগ করা
  • ছোট, শুষ্ক, শক্ত পায়খানা হওয়া
  • মল ত্যাগে অত্যন্ত কষ্ট হওয়া
  • পায়খানা করতে অধিক সময় লাগা
  • পায়খানা করতে অধিক চাপের দরকার হওয়া
  • অধিক সময় ধরে পায়খানা করার পরও পূর্ণতার অনুভূতি না আসা
  • পেট ফুলে থাকা
  • আঙুল, সাপোজিটরি কিংবা অন্য কোনো মাধ্যমের সাহায্যে পায়খানা করা
  • মলদ্বারের আশপাশে ও তলপেটে ব্যথার অনুভব হওয়া
  • মলদ্বারে চাপের অনুভূতি হওয়া।

কোষ্ঠকাঠিন্যের চিকিৎসা করা না হলে কি কি অসুবিধা হতে পারে?

  • অর্শ বা পাইলস হওয়া
  • এনাল ফিশার বা মলদ্বারে আলসার হওয়া
  • রেকটাল প্রোলেপস বা মলদ্বার বাইরে বের হয়ে আসা
  • পায়খানা ধরে রাখতে না পারা
  • খাদ্যনালীতে প্যাঁচ লাগা
  • প্রস্রাব বন্ধ হয়ে যাওয়া
  • মানসিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়া
  • খাদ্যনালীতে আলসার বা ঘা, এমনকি পারফোরেশন বা ছিদ্র হওয়া ।
এই সমস্যা স্থায়ী ভাবে নির্মূল করার উন্নত মানের ঔষধ রয়েছে হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা বিজ্ঞানে। আপনি যদি এই বহুদিন যাবৎ কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যায় ভুগে থাকেন তাহলে লোকাল কোন হোমিও ডাক্তারের কাছে না গিয়ে অভিজ্ঞ একজন হোমিও চিকিৎসকের পরামর্শ ক্রমে চিকিৎসা নিন। ইনশাল্লাহ এই সমস্যা থেকে আপনি মুক্তি লাভ করবেন।

পুরাতন কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যার কারণ, লক্ষণ এবং এর থেকে মুক্তির উপায় ডাক্তার আবুল হাসান 5 of 5
কোষ্ঠ অর্থ হচ্ছে মলাশয় আর কোষ্ঠকাঠিন্য অর্থ হচ্ছে মলাশয়ের মল ঠিকমতো পরিষ্কার না হওয়া বা মলে কাঠিন্যহেতু মলত্যাগে কষ্টবোধ হওয়া। যথেষ্ট পরিমা...

ডাঃ মোঃ গিয়াস উদ্দিন (ডিএইচএমএস - বিএইচএমসি, ঢাকা)

অভিজ্ঞ হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক (মডেল হোমিও ফার্মেসি। যাত্রাবাড়ী, ঢাকা।)

যৌনসমস্যা (দ্রুত বীর্যপাত, হস্তমৈথুন অভ্যাস, লিঙ্গ নিস্তেজ, যৌন দুর্বলতা, পুরুষত্বহীনতা, ধ্বজভঙ্গ, হাইড্রোসিল, ভেরিকোসিল, সিফিলিস, গনোরিয়া ইত্যাদি) স্ত্রীরোগ (ডিম্বাশয়ে টিউমার, সিস্ট, ব্রেস্ট টিউমার, জরায়ুতে টিউমার, জরায়ু নিচে নেমে আসা, যোনিতে প্রদাহ, অনিয়মিত মাসিক, বন্ধ্যাত্ব, অতিরিক্ত স্রাব ইত্যাদি), বাত ব্যথা, লিভার, কিডনি, আইবিএস, পুরাতন আমাশয়, গ্যাস্ট্রিক, পাইলস বা অর্শ, গেজ, ভগন্দর ইত্যাদি রোগের অভিজ্ঞ হোমিও চিকিৎসক।

কথা বলুন (সরাসরি ডাক্তার) : ০১৯২৪-০৪১৮৯৬ এবং ০১৭৮৯-১৪৪৩৭১
আপনার যেকোন স্বাস্থ সমস্যায় হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা নিতে যোগাযোগ করুন।