Showing posts with label নারীদের স্বাস্থ্য. Show all posts
Showing posts with label নারীদের স্বাস্থ্য. Show all posts

Tuesday, October 14, 2014

মূত্রনালীর শোথ ঘা (Urinary Fistula) কারণ, লক্ষণ এবং হোমিও চিকিৎসা

মূত্রনালীর শোথ ঘা (Urinary Fistula) : সিফিলিস বা গনোরিয়া রোগের কারণে অনেক সময় মূত্রনালীর প্রদাহ সৃষ্টি হয়ে স্ফোটকের সৃষ্টি হয় এবং ইহাতে পুঁজ উত্পন্ন হয়। এক সময় ইহা ফেটে যায় এবং সেখানে ঘায়ের সৃষ্টি করে। এই জাতীয় ঘা বা ক্ষতকে ইউনারি ফিস্টুলা বলা হয়। এর ফলে মূত্রনালীর ভেতরে জ্বালাপোড়া এবং বেদনা প্রকাশ পায়। এই সকল ঘা বা ক্ষত সাধারণত সহজে শুকাতে চায় না এবং এ জাতীয় ক্ষত হতে ক্রমান্নয়ে পুঁজরক্ত পড়তে থাকে এবং রোগী অসহ্য যন্ত্রণা ভোগ করে থাকে। ধীরে ধীরে এই সকল ক্ষত ভয়ঙ্কর রূপ লাভ করে। আবার দেখা যায়, প্রস্রাব না হওয়ার জন্য হার্ড কাথিটার প্রবেশ করানোর জন্যও এই ক্ষতের সৃষ্টি হয়ে থাকে।

কখনো কখনো এই জাতীয় ফিস্টুলা মূত্রনালীর অভ্যন্তর ভাগে একাধিক হতে পারে। এই নালীক্ষতের মুখ মূত্রনালীর সাথে যুক্ত হয়ে যায় এবং এর সঙ্গে প্রস্রাব স্বাভাবিক মূত্রছিদ্র দিয়ে অল্প পরিমানে বের হয় কিন্তু নালীক্ষতের মুখ দিয়ে অধিক পরিমান প্রস্রাব বের হয়ে থাকে। অনেক সময় দেখা যায় এই জাতীয় নালীক্ষত তেমন জ্বালা-যন্ত্রণা এবং বেদনার উদ্রেক করে না। আবার কোন কোন সময় ভয়ানক যন্ত্রণা করে, কেটে ফেলার মত বেদনা থাকে। মূত্রনালী প্রদাহান্নিত হয়ে ফুলে উঠে এবং অসহ্য যন্ত্রণা সৃষ্টি করে। মাঝে মাঝে এই যন্ত্রণা এত বেশি হয় যে রোগী তা সহ্য করতে পারে না। কখনো কখনো প্রস্রাব অবরুদ্ধ হয় আবার প্রস্রাব কালে ভয়ানক জ্বালাপোড়া করে।
এই ক্ষত যেহেতু অভ্যন্তর ভাগে সৃষ্টি হয় এবং প্রস্রাবের সাথে নানা প্রকার দূষিত ও উত্তেজক পদার্থের স্পর্শ লাগে সেই জন্য সহজে শুকাতে চায় না। এই জাতীয় রোগী প্রস্রাবের জ্বালা-যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে অনেক সময় চিত্কার করে উঠে। বস্তুত ইহা একটি ভয়ানক বেদনার রোগ বিশেষ।

মূত্রনালীর শোথ ঘা বা ইউনারি ফিস্টুলা (Urinary Fistula) নির্মূলে সফল এবং আরোগ্যকারী চিকিত্সা দিয়ে থাকেন অভিজ্ঞ হোমিওপ্যাথরা। রোগীর সবগুলি লক্ষণ বিবেচনায় এনে যথাযথ ট্রিটমেন্ট দিলে কিছু দিনের মধ্যেই যাবতীয় জ্বালা-যন্ত্রণাকর উপসর্গসমূহ দূর হয়ে রোগী ধীরে ধীরে সুস্থতার দিকে এগোয় এবং একসময় কোন প্রকার পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া ছাড়াই পরিপূর্ণ আরোগ্য লাভ করে থাকে।
বিস্তারিত